ফসলাদি জমি রক্ষা পেলো না বালু খেকো রুহুলের হাত থেকে


রুদ্রবাংলা প্রকাশের সময় : জানুয়ারী ১৯, ২০২৪, ২১:১১ /
ফসলাদি জমি রক্ষা পেলো না বালু খেকো রুহুলের হাত থেকে

ইসলামপুর (জামালপুর) প্রতিনিধি: জামালপুরের ইসলামপুর উপজেলা নোয়ারপাড়া ও চিনাডুলী ইউনিয়নে নদী ভাঙ্গন এলাকার বিভিন্ন ফসলাদি জমির বালু ও এটেল মাটি রুহুল আমিনের হাত থেকে রক্ষা পেলো না। স্থানীয় প্রশাসন নিরব।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়,রুহুল আমিন দীর্ঘদিন যাবত যমুনার নদীর পাড় থেকে সিক্স সিলিন্ডার ড্রেজার, চরাঞ্চলের বিভিন্ন স্থান থেকে ভলগেট দ্বারা বালু উত্তোলন ও ফসলাদি জমিনে ইঞ্জিন চালিত বেকু দিয়ে মাটি খনন করে দৈনিক ২০-৩০টি মাহিন্দ্র গাড়ি দিয়ে সরবরাহ করে বিভিন্ন স্থানে অবৈধভাবে বিক্রয় করেন।
এতে হুমকিতে রয়েছে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, হাইস্কুল, মাদরাসা, কমিউনিটি ক্লিনিক, পথচারী, ফসলি জমি, ব্রীজ, সরকারের হাজার হাজার টাকায় নির্মিত রাস্তাঘাট ও পাইলিং পাড়।
স্থানীয়দের অভিযোগ বালু ও মাটি ব্যবসায়ী রুহুল আমিন প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে ক্ষমতার অপব্যবহার করে অবৈধভাবে মাটি ও বালু উত্তোলন করে আসছেন।
কিন্তু এখন পর্যন্ত তার বিরুদ্ধে প্রশাসন কােন ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি । যেন দেখার কেউ নেই।
নাম বলতে অনিচ্ছুক অনেকেই অভিযোগ করে বলেন, রুহুল আমিনের হাত নাকি অনেক লম্বা। বড় বড় প্রভাবশালী নেতা ও প্রশাসনিক কর্মকর্তা নাকি রুহুল আমিনের পকেটে থাকে।
এ ব্যাপারে মাটি ব্যবসায়ী রুহুল আমিন সাংবাদিকদের বলেন, আপনাদের যা মন চায় তাই লেখেন। তাতে আমার কিচ্ছু যায় আসেনা।
এ ব্যাপারে সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো: শাহেনুর রহমান এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, অভিযুক্ত রুহুল আমিনের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।