নাশকতার মামলায় গেন্ডারিয়া থানা বিএনপি সাধারন সম্পাদক ও ওয়ার্ড কাউন্সিলর কাদিরসহ আটক-৪


রুদ্রবাংলা প্রকাশের সময় : নভেম্বর ২৫, ২০২৩, ০৮:৫২ /
নাশকতার মামলায় গেন্ডারিয়া থানা বিএনপি সাধারন সম্পাদক ও ওয়ার্ড কাউন্সিলর কাদিরসহ আটক-৪

নাশকতার মামলায় রাজধানীর গেন্ডারিয়া থানা বিএনপি সাধারন সম্পাদক ও ঢাকা দক্ষিন সিটি কর্পোরেশন (ডিএসসিসি) ৪৫ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ আব্দুল কাদিরসহ ৪ জনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।

র‌্যাব জানিয়েছে, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-১০ এর একটি দল গতকাল বুধবার দুপুর থেকে শুরু করে সন্ধ্যা পর্যন্ত রাজধানীর পল্টন, যাত্রাবাড়ী, খিলগাও ও মুন্সিগঞ্জের সিরাজদিখান এলাকায় একাধিক অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করেন।

আটককৃত ব্যক্তিরা হলেন, রাজধানীর গেন্ডারিয়া থানা বিএনপি সাধারন সম্পাদক ও ঢাকা দক্ষিন সিটি কর্পোরেশন (ডিএসসিসি) ৪৫ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ আব্দুল কাদির (৫৫), মুন্সিগঞ্জের সিরাজদিখান থানা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ আমিন উদ্দিন চৌধুরী (৫৬), মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুর মহানগর যুবদলের সহ-সভাপতি মোঃ মিজান ঢালী (৩৭) ও মাসুদ পাটোয়ারী (৪৮)।

রাজধানীর গেন্ডারিয়া, মুন্সিগঞ্জ ও নোয়াখালি জেলায় তাদের বাড়ি গ্রামের বাড়ি বলে জানা গেছে।

ডিএমপি পল্টন, যাত্রাবাড়ী ও গেন্ডারিয়া থানার নাশকতা, বিস্ফোরক দ্রব্য আইন তৎসহ পেনাল কোড আইনের মামলার এজাহারভুক্ত পলাতক আসামী তারা।

আজ বৃহস্পতিবার র‌্যাব-১০ এর উপপরিচালক সহকারী পরিচালক (অপস্) আমিনুল ইসলাম জানান, গত ২৮ অক্টোবর ২০২৩ তারিখ থেকে তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা বাস্তবায়ন ও বিএনপি নেতাদের মুক্তির দাবিতে বিএনপি/জামায়ত এর নেতাকর্মীরা অবরোধের নামে রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় বাস, ট্রাক, সিএনজি, লেগুনা, এ্যাম্বুলেন্সসহ বিভিন্ন পরিবহন ভাংচুর ও ককটেল নিক্ষেপ/দাহ্য পদার্থ দ্বারা বাসে অগ্নিসংযোগ করে। এছাড়া আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর বেশ কয়েকজন সদস্যদের ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে ও লাঠিসোটা দিয়ে পিটিয়ে আহত করে। এমনকি গত ২৮ অক্টোবর ২০২৩ তারিখের নারকীয় তাণ্ডবে একজন পুলিশ কনস্টেবল আমিরুল ইসলাম পারভেজকে লাঠিসোটা দিয়ে পিটিয়ে ও ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে নৃশংসভাবে হত্যাসহ সারা দেশে ব্যাপক নাশকতা শুরু করে।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃত আসামী বিভিন্ন সময় নাশকতার পরিকল্পনার সাথে তাদের সম্পৃক্ততা থাকার কথা স্বীকার করেছে। এছাড়া ইতোপূর্বে তারা রাজধানীর পল্টন, যাত্রাবাড়ী, খিলগাও এবং মুন্সিগঞ্জের সিরাজদিখানসহ আশপাশের বিভিন্ন এলাকায় গাড়ী ভাংচুর, বাসে অগ্নি সংযোগসহ বিভিন্ন প্রকার নাশকতা মূলক কার্যক্রমের সাথে সরাসরি জড়িত ছিল বলে জানায়।

গ্রেফতারকৃত আসামীদের সংশ্লিষ্ট পৃথক থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানান র‌্যাবের
এ দায়িত্বশীল কর্মকর্তা।