পিরোজপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা কার্যক্রম শুরুর অনুমতি


রুদ্রবাংলা প্রকাশের সময় : সেপ্টেম্বর ২০, ২০২৩, ১৫:১০ /
পিরোজপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা কার্যক্রম শুরুর অনুমতি

পিরোজপুর প্রতিনিধিঃ পিরোজপুরে প্রতিষ্ঠিত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (বশেমুরবিপ্রবিপি) ২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষ থেকে শিক্ষা কার্যক্রম শুরুর অনুমতি পেয়েছে। এর ফলে আগামী বছর থেকেই শিক্ষার্থী ভর্তি করাতে পারবে প্রতিষ্ঠানটি।

বিশিষ্ট মনোবিজ্ঞানী অধ্যাপক ড. কাজী সাইফুদ্দীন উপাচার্য হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণের মাত্র ১০ মাসের মধ্যে শিক্ষা কার্যক্রম শুরুর অনুমতি পেল বশেমুরবিপ্রবিপি। সম্প্রতি বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) এক সভায় বশেমুরবিপ্রবিপি’র শিক্ষা কার্যক্রম শুরুর বিষয়ে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা কার্যক্রম যথাযথভাবে পরিচালনার জন্য মেধাবী, দক্ষ ও অভিজ্ঞ শিক্ষক নিয়োগের কৌশল ও পদ্ধতি নির্ধারণের বিষয়েও আলোচনা হয়।

ইউজিসি সদস্য অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ আলমগীরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় ইউজিসি সদস্য অধ্যাপক ড. মো. আবু তাহের, বশেমুরবিপ্রবিপি উপাচার্য অধ্যাপক ড. কাজী সাইফুদ্দীন, ইউজিসির পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় ম্যানেজমেন্ট বিভাগের পরিচালক মোহাম্মদ জামিনুর রহমান, অতিরিক্ত পরিচালক মো. ফজলুর রহমানসহ ইউজিসি ও বিশ্ববিদ্যালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। পিরোজপুরে জাতির জনকের নামে প্রতিষ্ঠিত বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়টিকে দুই অনুষদের ৪ বিভাগে শিক্ষার্থী ভর্তির অনুমোদন দিয়েছে ইউজিসি। শিক্ষার প্রকৃত উদ্দেশ্য অর্জন ও অংশগ্রহণমূলক পাঠদান নিশ্চিত করতে প্রত্যেক বিভাগে সর্বোচ্চ ৪০ জন করে শিক্ষার্থী ভর্তি করতে পারবে বশেমুরবিপ্রবিপি।

শিক্ষার্থী ভর্তির অনুমোদন পাওয়া বিভাগগুলো হলো- বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত গণিত, মনোবিজ্ঞান, পরিসংখ্যান ও প্রকৌশল এবং প্রযুক্তি অনুষদভুক্ত কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ। গত বছরের ১৮ সেপ্টেম্বর বশেমুরবিপ্রবিপি’র প্রথম উপাচার্য হিসেবে নিয়োগ পান অধ্যাপক ড. কাজী সাইফুদ্দীন। একই বছরের ২০ সেপ্টেম্বর বিশিষ্ট এই মনোবিজ্ঞানী বশেমুরবিপ্রবিপি উপাচার্য হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন। এরপর থেকে তার সুদক্ষ নেতৃত্বে বশেমুরবিপ্রবিপি’র কার্যক্রমএগিয়ে চলছে। এর আগে ২০২১ সালের ১৮ নভেম্বর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, পিরোজপুর বিলটি জাতীয় সংসদে উত্থাপন করেন পিরোজপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য এবং বর্তমান মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রঅ শ ম রেজাউল করিম। বিলটি সংসদে উত্থাপিত হলে তা শিক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে পাঠানো হয়। যাচাই-বাছাই শেষে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বিলটি ‘আইন’ আকারে পাসের জন্য ২০২২ সালের ২৯ মার্চ সংসদে উত্থাপন করেন এবং তা পাস হয়। এর মধ্য দিয়ে দেশের ৫৩তম সরকারি বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, পিরোজপুর এর পথচলা শুরু হয়।

এ পিরোজপুরে এ বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠিত হওয়ার জন্য নিরলসভাবে কাজ করেছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম। এ বিশ্ববিদ্যালয়ে নিজস্ব ক্যাম্পাস নির্মানের জন্য পিরোজপুর সদর উপজেলার কদমতলা এলাকায় জমি অধিগ্রহণ কাজ চলছে।