কাউখালী বঙ্গমাতা সেতুর উদ্বোধনের এক বছর ,আয় সাড়ে তিন কোটি টাকা


রুদ্রবাংলা প্রকাশের সময় : সেপ্টেম্বর ৫, ২০২৩, ০১:১৮ /
কাউখালী বঙ্গমাতা সেতুর উদ্বোধনের এক বছর ,আয় সাড়ে তিন কোটি টাকা

এনামুল হক, বিশেষ প্রতিনিধিঃ পিরোজপুর জেলার কঁচা নদীর উপরে নির্মীত বঙ্গমাতা বেগম শেখ ফজিলাতুন্নেছা ৮ ম বাংলাদেশ চীন মৈত্রী সেতু উদ্বোধনের এক বছর পূর্ন হল আজ। এক বছরে সরকারের আয় হয়েছে ৩ কোটি ৫৪ লক্ষ টাকা বলে জানান পিরোজপুর সড়ক বিভাগ।

২০২২ সালের ৪ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ সেতুর উদ্বোধন করেন। এ সেতু উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে বরিশাল ও খুলনা বিভাগের মধ্যে সরাসরি সড়ক পথে সরাসরি যোগাযোগ ব্যবস্থা চালু হয়। এ ছাড়া স্থল বন্দর বেনাপোল,যশোর ও মোংলা পোর্টের সাথে পায়রা বন্দরের ও পর্যাটন কেন্দ্র সমুদ্রকন্যা কুয়াকাটার সাথে স্থল পথে নিরিবিছন্ন যোগাযোগ চালু হয়।বরিশাল গামী এক বাস যাত্রী বলেন, আগে আমাদের বরিশাল যেতে প্রায় তিন ঘন্টা সময় লাগত এ মধ্যে ঘাটেই বসে থাকতে হত ১ ঘন্টা আর এখন ব্রীজ চালু হবার কারনে ১ থেকে দের ঘন্টায় আমরা বরিশাল পৌছাই।

কাউখালী প্রেসক্লাবের সভাপতি এনামুল হক বলেন, বঙ্গমাতা সেতু চালু হবার আগে বেকুটিয়া ফেরিঘাটে যাত্রীদের অনেক ভোগান্তি হত। অনেক সময় নদীতে স্ত্রোত থাকার কারনে ফেরি বন্ধ থাকত এ সময় এম্বুলেন্স এ থাকা যাত্রীদের অনেক ভোগান্তী হত। এ ব্রীজটি ছিল এ অঞ্চলের মানুষের প্রানের দাবী।কাউখালীর শিয়ালকাঠী ইউপি চেয়াম্যান গাজী সিদ্দিকুর রহমান বলেন, এ ব্রীজ বর্তমান সরকারের উন্নয়নের রোলমডেলের একটি অংশ। আর এ ব্রীজ উদ্বোধনের আজ এক বছর পূর্ন হল। আমারা দক্ষিনাঞ্চলের মানুষ প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানাই আর সাথে পিরোজপুর ¯স্বরূপকাঠি সড়কে আমরাজুরী ফেরির পরিবর্তে সেতু নির্মানের দাবী জানাই।

পিরোজপুর সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী তানভির আহম্মেদ বলেন গত ১ বছরে এ সেতু থেকে সরকারের ৩ কোটি ৫৪ লক্ষ টাকা আয় হয়েছে আর সময়ে ৪ লক্ষ ৮ হাজার গাড়ি এ সেতু অতিক্রম করেছে।উল্লেখ্য ২০১৮ সালের জুলাই মাসে ৮ম বাংলাদেশ-চীন মেত্রী সেতু চায়না রেলওয়ের সেভেনটিন ব্যুরো গ্রুপ কোম্পানি লিমিটেড নির্মাণ কাজ শুরু করে ছিলেন । সেতুটির দৈর্ঘ্য ৯৯৮ মিটার, ২৮.৯৮ মিটার উচ্চতা ও ৪৫ মিটার চওরা এবং ৯টি স্প্যান নিয়ে এই সেতুর নির্মাণ ব্যয় ৮৯৮ কোটি টাকা। এরমধ্যে বাংলাদেশ সরকার ২৪৪ কোটি এবং বাকি ৬৫৪ কোটি টাকা ব্যয় করে চায়না কোম্পানি। সেতুটি চায়না কোম্পানি গতবছ ৭ আগষ্ট সড়ক ও জনপথ বিভাগের কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে হস্তান্তর করে। পিরোজপুরের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ জাহেদুর রহমান বলেন ,এ ব্রীজটি এ অঞ্চলের মানুষের স্বপ্ন ছিল এ ব্রীজটি আজ এক বছর পূর্ন হল। আমি এ অঞ্চলের মানুষের পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানাই।

বঙ্গমাতার নামে এ ব্রীজটির নামকরন করায় তার প্রতি আমরা কৃতজ্ঞ। আজ ৪ সেপ্টেম্বর এই সেতু উদ্বোধনের এক বছর পূর্তি আমরা পালন করলাম। এই সেতুটি চালু হওয়া খুলনা বরিশাল বিভাগের ২ কোটি ৬৫ লক্ষ মানুষের নিরব ছিন্ন যোগাযোগ ব্যবস্থার সুফল ভোগ করছেন। এই দিনটি এ অঞ্চলের মানুষের কাছে চির স্মরণীয় হয়ে থাকবে।