ডাক্তারের প্যাডে প্রেসক্রিপশন করছেন অন্যজন


রুদ্রবাংলা প্রকাশের সময় : সেপ্টেম্বর ৩, ২০২৩, ২১:০২ /
ডাক্তারের প্যাডে প্রেসক্রিপশন করছেন অন্যজন

মোঃ রুবেল মিয়া বিজয়নগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) সংবাদদাতা:

বিজয়নগরে ডায়াগনস্টিক সেন্টারে ডাক্তারের প্যাড ব্যবহার করে অবৈধ ভাবে চিকিৎসা সেবা প্রদানের অভিযোগে ১লক্ষ টাকা জরিমানা আদায় করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

গত শুক্রবার বিকালে আমতলী বাজারে পদ্মা ডায়াগনস্টিক সেন্টারে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এ এইচ ইরফান উদ্দিন আহমেদ। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসার ডাঃ মোঃ মাছুম জানান,উপজেলার চান্দুরা ইউনিয়নের আমতলী বাজার এলাকার পদ্মা ডিজিটাল ডায়াগনস্টিক সেন্টারে জাতীয় অর্থোপেডিক হাসপাতাল (নিটোর) ঢাকার ট্রমা সার্জন কনসালটেন্ট ডা. সুব্রত সাহার নাম ব্যবহার করে মাইকিং ও প্রচার প্রচারণা চালিয়ে ডাক্তারের প্যাড ব্যবহার করে অন্য ডাক্তার ও হাসপাতালের স্টাফদের দিয়ে রোগী দেখানো হচ্ছে এমন অভিযোগের প্রেক্ষিতে গতকাল শুক্রবার বিকালে সংশ্লিষ্ট ডায়াগনস্টিক সেন্টারে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনাকালে ঘটনার সত্যতা পাওয়া যায় এবং সেখানে ডা. তপন দেবনাথ নামের একজন ডাক্তার ডা. সুব্রত সাহার নামে তৈরিকৃত প্যাড ব্যবহার করে রোগী দেখছেন মর্মে হাতেনাতে প্রমাণিত হয়। সংশ্লিষ্ট ডায়াগনস্টিক সেন্টারের মালিক ও ডা. তপন দেবনাথ উভয়ে নিজেদের দোষ স্বীকার করে ক্ষমা প্রার্থনা করেন।এব্যাপারে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার এ এইচ ইরফান উদ্দিন আহমেদ বলেন, দীর্ঘদিন ধরে এই ডায়াগনস্টিক সেন্টার রুগীদের সাথে প্রতারণা চালিয়ে আসছিল। সুব্রত সাহার নামে মাইকিং করে তার প্যাডে একেক সময় একেক জন প্রেসক্রিপশন করে দেন।

তাদের হাতেনাতে ধরে তাদের দ্বারা সংঘটিত অপরাধের বিষয় আমলে নিয়ে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ অনুযায়ী ডায়াগনস্টিক সেন্টারের মালিক মো: খুরশেদ আলমকে ১,০০,০০০/- (এক লক্ষ) টাকা অর্থদণ্ড আরোপ করে তা আদায় করা হয়।ভবিষ্যতে এইসব অপরাধ বন্ধ করতে নিয়মিত ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হবে।