কাউখালীতে খালে গোসল করতে নেমে  মাদরাসা ছাত্র নিখোঁজ: ৩ ঘন্টা পর লাশ উদ্ধার 


রুদ্রবাংলা প্রকাশের সময় : জুলাই ১৩, ২০২৩, ০০:১০ /
কাউখালীতে খালে গোসল করতে নেমে  মাদরাসা ছাত্র নিখোঁজ: ৩ ঘন্টা পর লাশ উদ্ধার 

মাহবুবা নাজমিন কাউখালী(পিরোজপুর) প্রতিনিধি :

পিরোজপুরের কাউখালীতে খালে গোসল করতে নেমে শিক্ষকের সামনেই মো. ওবায়দুল্লাহ (১৪) নামের এক মাদরসা ছাত্র নিখোঁজ।নিখোঁজের তিন ঘন্টা পর ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরিরা লাশ উদ্ধার করে।

ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার(১২ জুলাই) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার সদরের গারতা খালে। নিখোঁজ মাদরাসা ছাত্র ওবায়দুল্লাহ উপজেলার সদর ইউনিয়নের মুক্তারকাঠী গ্রামের মাওলানা জাকির হোসেনের ছেলে এবং গারতা এহইয়ায়ে উলূমূদ্দিন কওমী মাদরাসার হেফজ বিভাগের ছাত্র। নিখোঁজ মাদরাসা ছাত্রের পিতা কাউখালী কেন্দ্রীয় আলিম মাদরসার শিক্ষক।

ওই মাদরাসার মোহতারিম আ: মান্নান জানান, ওই দিন সকালে শিক্ষার্থীরা তাদের পাঠ সেরে ঘুমায়। বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ঘুম থেকে উঠে ১৪-১৫ জন ঘোসল করতে স্থানীয় গারতা খালের ষ্টিল ব্রীজ সংলগ্ন মাদরাসার ঘাটে গোসল করতে যায়। এ সময় ওই মাদরাসার শিক্ষক হাফেজ কামরুল ইসলাম খালের পাড়ে দাঁড়িয়ে ছিলেন এবং এসময় মৃত ওবায়দুল্লার ছোট ভাই সেফাত উল্লাহ তার সাথে গোসলে নামে। হঠাৎ খালের ভাটার পানির সাথে ওই ছাত্রটি নিখোঁজ হয়। বিষয়টি ওই শিক্ষক মাদরাসার মোহতারিমকে জানালে তিনি ফায়ার সার্ভিসে খবর দেন। উপজেলা ফায়ার সার্ভিসের ভারপ্রাপ্ত স্টেশন কর্মকর্তা মো. মাকসুদুর রহমান মুঠোফোনে জানান, খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীদের নিয়ে আমরা সেখানে গিয়ে উদ্ধার কাজ শুরু করি।উদ্ধার অভিযানের এক পর্যায়ে বেলা ২ টা ২০ মিনিটের দিকে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি নিখোঁজ শিশুটির লাশ খাল থেকে উদ্ধার করে।

কাউখালী থানার অফিসার ইন চার্জ (ওসি) মো. জাকারিয়া হোসেন জাকির জানান, খবর পেয়ে সেখানে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দলের নিখোঁজের তিন ঘন্টা পর শিশুটির লাশ উদ্ধার করেছে।